যশোর আজ শুক্রবার , ২৮ জানুয়ারি ২০২২ ১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. জবস
  7. জাতীয়
  8. প্রবাস
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ভ্রমণ
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

ব্রাজিলকে রুখে দিলো ইকুয়েডর

প্রতিবেদক
Jashore Post
জানুয়ারি ২৮, ২০২২ ১০:৫৪ পূর্বাহ্ণ
ব্রাজিলকে রুখে দিলো ইকুয়েডর
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

ঘরের মাঠে ১-১ গোলে ব্রাজিলকে রুখে দিলো ইকুয়েডর। একের পর এক আক্রমণ চালালো ব্রাজিল। শুরুতেই গোল পাওয়ায় প্রতিপক্ষ ইকুয়েডরের ওপর আরও চড়াও হয় তারা। বিপরীতে প্রতিআক্রমণ নির্ভর ফুটবল খেলে বেশ কয়েকবার সেলেসাওদের রক্ষণ কাঁপিয়ে দিয়েছিল স্বাগতিকরা।

বাংলাদেশ সময় আজ ( শুক্রবার ) ভোরে লা কাসা ব্লাঙ্কা স্টেডিয়ামে তখন দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি টাইমের খেলা শুরু হয়েছে। প্রতিপক্ষের ক্রস ক্লিয়ার করতে গিয়ে ব্রাজিল গোলকিপার আলিসন ঠেলা মারেন ইকুয়েডরের এদুয়ার প্রেসিয়াদোকে। রেফারি অমনি বাজান পেনাল্টির বাঁশি।

আগেই একবার হলুদ কার্ড দেখা আলিসন এবার দেখেন লাল কার্ড। স্বাগতিক ইকুয়েডরের আনন্দ তখন দেখে কে! পেনাল্টিতে এগিয়ে যাওয়ার দারুণ সুযোগ। কিন্তু ভিএআরে অনেকক্ষণ ধরে চলা বিশ্লেষণে পাল্টে যায় রেফারির সিদ্ধান্ত। পেনাল্টি বাতিলের সঙ্গে উঠে যায় আলিসনের লাল কার্ডের ‘শাস্তি’। হতাশায় ডোবা ইকুয়েডর এরপর আর পারেনি গোল করতে। ব্রাজিলও গোলমুখ খুলতে না পারায় ১-১ গোলের ড্রতে শেষ হয় উপভোগ্য ম্যাচটি।

দ্বিতীয়ার্ধের ইনজুরি টাইমে ব্রাজিল গোলকিপার আলিসনের লাল কার্ডের সঙ্গে পেনাল্টি পেলেও ভিএআরে বাতিল হয়েছে তা।এর আগে অবশ্য দুই দলের দুই খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখায় ম্যাচের বেশিরভাগ সময় খেলা হয়েছে ১০ জন নিয়ে। লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাইয়ের এই রোমাঞ্চকর ম্যাচের স্কোরলাইনটাও সমান।

কাতার বিশ্বকাপের মূল পর্ব নিশ্চিত হওয়ার পরও বরং পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে নেমেছিল ইকুয়েডরের বিপক্ষে। যদিও চোটের কারণে দলের সেরা খেলোয়াড় নেইমার ছিলেন না। দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে সেলেসাওরা শুরুতেই এগিয়ে যাওয়ার পর ইকুয়েডরের এক খেলোয়াড় সরাসরি লাল কার্ড দেখলে তিতের দলের হাসি আরও চওড়া হয়। তবে খানিক পর ব্রাজিলের এক খেলোয়াড় লাল কার্ড দেখলে জমে যায় ম্যাচ। ১০ জনের দল নিয়ে চলতে থাকা দুই দলের লড়াইয়ে শেষ দিকে এসে ইকুয়েডর সমতায় ফিরলে জমজমাট এক লড়াইয়ের চমৎকার সমাপ্তি ঘটে।

এর আগে ঘটনাবহুল প্রথমার্ধের শুরুতেই এগিয়ে যায় ব্রাজিল। ম্যাচ ঘড়ির ষষ্ঠ মিনিটে কাসেমিরোর গোলে ফেভারিটের মতো শুরু করে সেলেসাওরা। মাথেয়াস কুনহার হেড প্রতিপক্ষ প্রতিহত করলে ফিরতি বলে লক্ষ্যভেদ করেন রিয়াল মাদ্রিদ মিডফিল্ডার। যদিও ম্যাচের প্রথম সুযোগটি পেয়েছিল ইকুয়েডর। তবে দ্বিতীয় মিনিটে এদের ভ্যালেন্সিয়া ছোট বক্সের ভেতর থেকেও পারেননি লক্ষ্যভেদ করতে।

ইকুয়েডরের বিপদ আরও বাড়ে ১৫তম মিনিটে, যখন কুনহাকে বাজেভাবে ফাউল করে সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন আলেক্সান্দার দমিনগেস। তবে তাদের সমান ১০ জনের দল হতে বেশি সময় লাগেনি ব্রাজিলের। মিনিট পাঁচেক পর দ্বিতীয় হলুদের সঙ্গে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন এমারসন।

ভাগ্য বলতে হবে আলিসনের। ম্যাচের শেষ দিকেই শুধু নয়, ২৮তম মিনিটেও লাল কার্ড দেখেছিলেন লিভারপুল গোলকিপার। তবে সেবারও ভিএআরের সাহায্যে রক্ষা পেয়েছিলেন তিনি। এই গোলকিপারের দুর্দান্ত সব সেভে খেলায় ছিল ব্রাজিল। যদিও ৭৫ মিনিটে আর জাল অক্ষত রাখতে পারেননি। তাকে হতাশ করে স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান ফেলিক্স তোরেস।

এরপর শেষ দিকের সেই নাটকীয় মুহূর্ত। যেখানে আনন্দের উপলক্ষ হতাশায় রূপ নেয় ইকুয়েডরের। তারপরও বিশ্বকাপ বাছাইয়ে উড়তে থাকা ব্রাজিলকে রুখে দেওয়াটাও কম প্রাপ্তি নয় তাদের জন্য! লাতিন আমেরিকা অঞ্চল থেকে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করা সেলেসাওরা ১৪ ম্যাচে ৩৬ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে। অন্যদিকে এক ম্যাচ বেশি খেলা ইকুয়েডর ২৪ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে।

সর্বশেষ - সারাদেশ