যশোর আজ বুধবার , ২৭ অক্টোবর ২০২১ ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. জবস
  7. জাতীয়
  8. প্রবাস
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ভ্রমণ
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

নোয়াখালীর সাম্প্রদায়িক সহিংসতায় বুলুসহ ১৫ নেতা জড়িতঃপুলিশের প্রেস ব্রিফিং

প্রতিবেদক
Jashore Post
অক্টোবর ২৭, ২০২১ ১:১৫ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

পোস্ট ডেস্ক :: নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনীর বিভিন্ন মন্দিরে হামলা ও সহিংসতার ঘটনায় গ্রেফতারকৃত জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সহসভাপতি ফয়সাল ইনাম কমল আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তিনি এ ঘটনায় বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লা বুলুসহ বিএনপি-জামায়াতের ১৫ নেতার সম্পৃক্ততার বিষয়ে তথ্য দিয়ে জবানবন্দি দেন বলে জানিয়েছেন নোয়াখালীর পুলিশ সুপার মোঃ শহীদুল ইসলাম।

মঙ্গলবার ( ২৭ অক্টোবর ) পুলিশ সুপারের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। পুলিশ সুপার জানান, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার হওয়া ফয়সাল ইনাম কমলকে সোমবার রাতে জেলার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হয়। বিচারক মোহাম্মদ সাঈদীন নাঁহী ১৬৪ ধারায় তার স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। জবানবন্দিতে কমল চৌমুহনীতে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনার উসকানিদাতা হিসেবে বরকত উল্লা বুলুসহ বিএনপি-জামায়াতের ১৫ জন নেতার সম্পৃক্ততার বিষয়ে তথ্য দিয়েছেন। তবে অন্য নেতাদের নাম তিনি বলেননি। জবানবন্দি গ্রহণ শেষে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশ সুপার আরো জানান, সোমবার গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে চৌমুহনী পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড করিমপুরের ইমরান হোসেন নিশান ( ২০ ) জেলা অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কোজী সোনিয়া আক্তারের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। একই আদালতে পূর্বে গ্রেফতারকৃত তিন আসামি নুরুল ইসলাম জীবন, আলী আজগর ও নুরুল ইসলাম সুমনের এক দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

পুলিশের একটি সূত্র জানায়, নিশান ও পূর্বে গ্রেফতারকৃত আব্দুর রহিম সুজনসহ কয়েকজন মন্দিরে লুটপাট করে ১ লাখ ৩৫ হাজার টাকা নিয়ে নিজেদের মধ্যে ভাগবাঁটোয়ারা করেন। নিশান ৮ হাজার টাকা ভাগে পান। এর মধ্যে সাড়ে ৫ হাজার টাকা সে খরচ করে। বাকি আড়াই হাজার টাকা তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়।

এদিকে নোয়াখালীতে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় দলীয় নেতাকর্মীদের গণহারে গ্রেফতারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে জেলা বিএনপি। গতকাল দুপুরে মাইজদীতে কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহানের বাসভবনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় জেলা বিএনপির সভাপতি এ জেড এম গোলাম হায়দার ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, পূজামণ্ডপে প্রকাশ্যে হামলার ঘটনা ঘটানো হলেও সরকার প্রকৃত অপরাধীদের আড়াল করতে পরিকল্পিতভাবে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও হয়রানিমূলক মামলা দিয়ে গণহারে গ্রেফতার করছে। এমনকি বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও বেগমগঞ্জের সাবেক এমপি বরকত উল্লা বুলুকে হুকুমের আসামি করা হয়েছে। এলাকার জনগণ এটা বিশ্বাস করে না। তারা সাম্প্রদায়িক হামলার বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানান।

সর্বশেষ - সারাদেশ