যশোর আজ রবিবার , ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. জবস
  7. জাতীয়
  8. প্রবাস
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ভ্রমণ
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ব্যবহার করুন কিসমিসের টোনার

প্রতিবেদক
Jashore Post
সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২৩ ৮:৪১ অপরাহ্ণ
ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ব্যবহার করুন কিসমিসের টোনার
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

ত্বকের জেল্লা ফেরাতে কিসমিস একদম ম্যাজিকের মতো কাজ করে। কিসমিস শরীর সুস্থ রাখতে যেমন বিশেষ ভূমিকা পালন করে তেমনি ত্বকের হাল ফেরাতেও রীতিমতো সিদ্ধহস্ত। কিন্তু সে কথা জানেন কজন? আজ তাই ত্বকের যত্নে কিসমিসের উপকারিতা ও গুণাগুণ এবং ব্যবহার সম্পর্কে জানানো হলো। জানার পরে আপনারও ব্যবহার করতে মন চাইবে।

কিসমিসে মেলে নানা উপকারী উপাদান– কিসমিসে হদিশ মেলে। বিভিন্ন উপকারী খনিজ এবং ভিটামিনের। অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট, ফেনল এবং ফ্ল্যাভনয়েডসে ঠাসা এই প্রাকৃতিক উপাদান ত্বকের অন্দরে ফ্রি ব়্যাডিকালসের বিরুদ্ধে লড়াই করে।

এছাড়াও কিশমিশে পাওয়া যায় ভিটামিন সি, যা কোলাজেন উৎপাদনে বিশেষ ভূমিকা নেয়। ত্বকের টানটান ভাব ধরে রাখতে এবং বলিরেখা মলিন করতেও এটি সিদ্ধহস্ত। আর কিশমিশের ভিটামিন ই ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে এবং সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে ত্বককে বাঁচাতে দারুণ কার্যকরী।

কিসমিসেই লুকিয়ে জেল্লার রহস্য– কিসমিসে টপিকাল অ্যাপ্লিকেশনেরও কিছু কার্যকরী ভূমিকা রয়েছে।সেক্ষেত্রে কিসমিস ভেজানো জলের জুড়ি মেলা ভার। এই পানীয় নিয়মিত পান করলে ত্বকের জেল্লা বাড়বেই, আবার মুখে মাখলেও নাকি মিলবে বিশেষ উপকার!

ত্বকের যত্নে কিসমিস যে কতটা উপকারী,তা নিশ্চয়ই এখন আপনার কাছে স্পষ্ট। এবার জেনে নিন ঠিক কী ভাবে ব্যবহার করলে এসব উপকার মিলবে। সেক্ষেত্রে আপনি ব্যবহার করতে পারেন কিসমিসের টোনার। বাড়িতে খুব সহজ উপায়ে এই টোনার আপনি বানিয়ে নিতে পারেন।

এই টোনার বানানোর জন্যে আপনার প্রয়োজন ২ টেবিল চামচ কিসমিস এবং ৪ টেবিল চামচ জল।একটি পাত্রে পরিমাণ মতো জল নিন। তার মধ্য়ে ২ টেবিল চামচ কিসমিস মেশান। সারা রাত ভিজিয়ে রাখুন। পরের দিন সকালে উঠে ছেঁকে নিয়ে কিসমিস তুলে রাখুন।এই জলকেই টোনার হিসেবে ব্যবহার করুন।

কিসমিসের টোনার কী ভাবে ব্যবহার করবেন?– কিসমিসের টোনারে একটি কটন বল চুবিয়ে নিন। তারপর পরিষ্কার মুখে ভালো করে লাগিয়ে নিন। তুলোর বলটি মুখে ঘষবেন না। টোনার লাগানোর পরে মালিশও করবেন না। ত্বক টোনার শুষে নেওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। তাহলেই মিলবে উপকার। দিনে দুবার এই টোনার লাগান। ১ মাস ব্যবহার করলেই পরিবর্তন চোখে পড়বে।

বিঃদ্রঃ- আপনার ত্বক সংবেদনশীল হলে বা আপনার ত্বকের কোনও চিকিৎসা চললে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া কোনও কিছু ব্যবহার করবেন না।

সর্বশেষ - সারাদেশ