যশোর আজ শনিবার , ৬ জুলাই ২০২৪ ২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. গল্প
  7. জবস
  8. জাতীয়
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

টিউবওয়েলের পানি নেয়া কে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনায় থানায় অভিযোগ

প্রতিবেদক
Jashore Post
জুলাই ৬, ২০২৪ ৭:০৪ অপরাহ্ণ
টিউবওয়েলের পানি নেয়া কে কেন্দ্র করে হামলার ঘটনায় থানায় অভিযোগ
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

কেশবপুর প্রতিনিধি :: কেশবপুর উপজেলায় সরকারি টিউবওয়েলের পানি নেয়াকে কেন্দ্র করে দিনমজুর পরিবারের ওপর হামলা ও বসতঘর ভাঙচুর করে দেওয়ার হুমকির সম্মুখীনে আছে একটি পরিবার।

ঘটনাটি ঘটেছে ( ৪ জুলাই ) বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার পাঁজিয়া ইউনিয়নের ডোঙ্গাঘাটা গ্রামের বসু পাড়ায়। আহত সাধনা রায়ের স্বামী গোপাল রায় বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

থানার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার ডোঙ্গাঘাটা গ্রামে বসু পাড়ায় আর্সেনিকমুক্ত পানির জন্য সঞ্জিব বসুর বাড়ির পাশে সরকারি জায়গায় ১০ থেকে ১৫ বছর পূর্বে রাস্তার ধারে একটি ডিপ-টিউবওয়েল বসানো হয়। মহল্লার লোকজন অত্র ডিপ-টিউবওয়েলে পানি আনতে গেলে সঞ্জিব বসু ও তার পরিবারের সদস্যরা বিভিন্ন সময়ে পানি নিতে নিষেধ করেন এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন।

অতঃপর গত বৃহস্পতিবার দুপুরে গোপাল রায়ের স্ত্রী অত্র ডিপ-টিউবওয়েলে পানি আনতে গেলে বিবাদী সঞ্জিব বসু দেখতে পেয়ে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে গোপাল রায়ের স্ত্রী সাধনা রায়ের সাথে কথা কাটাকাটি করে। কথা-কাটাকাটি একপর্যায়ে সঞ্জিব বসু ওরপে বাবুজি সাধনা রায় কে চড় থাপ্পড় ও কিল,ঘুসি মেরে গলা ধরে স্বজোরে ধাক্কা দিয়ে কলপাড়ে ফেলে দেয়। ওই সময়ে সাধনা রায়ের ডাক চিৎকারে তার স্বামী এগিয়ে আসলে  সাধনা রায়ের স্বামী গোপাল রায়কেও লাঠিশোটা দিয়ে মারপিট করার জন্য উদ্যত হলে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে ঠেকিয়ে দেয়। এসময় গোপাল রায় কে বিভিন্ন ধরনের ভয়-ভীতি ও হুমকি প্রদান করে। পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার সাধনা রায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়।

ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গদের সঙ্গে নিয়ে মীমাংসা চেষ্টা করলে সমসাময়িক বন্ধ থাকার পরেও পরবর্তীতে আবার তিনি মরিয়া হয়ে উঠেন।

এঘটনায় অভিযুক্ত সঞ্জিব বসু বলেন, সরকারি টিউবওয়েলের জল নিতে আমি কখনও বাধা দেয়নি, তার গায়ে হাতও দেয়নি।

ভুক্তভোগী গোপাল রায় বলেন,আমার স্ত্রীর উপর হামলাকারীরাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই এবং সরকারি জায়গায় ডিপ-টিউবওয়েলে পানি নিতে যাতে কোনো প্রকার বাঁধার মুখে না পড়তে হয় তার জন্য প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি।

এ ব্যাপারে কেশবপুর থানার পাঁজিয়া বিট অফিসার ঘটনা তদন্তকারী উপপরিদর্শক এসআই গোরাচাঁদ বলেন, সরকারি টিউবওয়েলের পানি নেওয়া কে কেন্দ্র করে যে ঘটনাটি ঘটেছে সেটা গোপাল রায় বাদী হয়ে থানায় একটি অভিযোগ করেছেন। বিষয়টি তদন্তপূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ - লাইফস্টাইল