যশোর আজ সোমবার , ৪ এপ্রিল ২০২২ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. গল্প
  7. জবস
  8. জাতীয়
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

রমজানকে ঘীরে চরফ্যাশনে লেবু,শসা ও বেগুনের দাম দ্বিগুন

প্রতিবেদক
Jashore Post
এপ্রিল ৪, ২০২২ ৪:৪৬ অপরাহ্ণ
রমজানকে ঘীরে চরফ্যাশনে লেবু,শসা ও বেগুনের দাম দ্বিগুন
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

কামরুজ্জামান শাহীন,ভোলা প্রতিনিধি :: পবিত্র রমজান মাস শুরুর প্রথম দিনই ভোলার চরফ্যাশনে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম লাগামহীন। তবে কি কারণে এমন অবস্থা তার সঠিক ব্যাখ্যা দিতে পারছে না খুচরা ব্যবসায়ীরা।

ক্রেতারা বলছে কৃত্রিম কারণে রোজার প্রথম দিন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম লাগামহীন ভাবে বেড়ে গিয়েছে। আর এর বিরুপ প্রভাব পড়ছে নিন্ম ও মধ্যবিত্ত শ্রেণি-পেশার মানুষের উপর।

প্রতিবছরের ন্যায় এবারও নিত্যপণ্যের বাজারে লেগেছে আগুন। ১২ ঘন্টারও বেশি সময় রোজা রাখার পর যাঁরা ইফতারে লেবুর শরবত পান করতে পছন্দ করেন, তাদের এবার দীর্ঘশ্বাস ফেলতেই হচ্ছে। পবিত্র মাহে রমজান শুরু হতেই চরফ্যাশন, শশীভূষণ বেড়ে গেছে লেবুর দাম।

গতকাল যে লেবুর হালি প্রতি বিক্রি করা হয়েছে ২০ টাকা থেকে ( পহেলা রমজান ) সে লেবু চরফ্যাশন ও শশীভূষণ শহর ও আস-পাশের হাটগুলোয় হালি প্রতি বিক্রি হয়েছে ৪০ থেকে ৫০ টাকায়।এখানেই শেষ নয় মূল্যবৃদ্ধির তালিকায় স্থান করে নিয়েছে শসা, বেগুন, ধনেপাতাসহ বেশ কয়েকটি সবজি জাতীয় পণ্য।

গতকাল যে শসা ১ কেজি বিক্রি হয়েছে ২০ টাকায় আজ ( পহেলা রমজান ) এক কেজি শসা ৭০ টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে। পূর্বে যে বেগুন প্রতি কেজি বিক্রি করা হয়েছে ২৫ টাকা ( পহেলা রমজান ) সেই বেগুন প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকায়।

এগুলো মূলত ইফতারি তৈরির উপাদান। আবার যারা সাহ্রিতে মুরগীর মাংস খেতে পছন্দ করেন তাদেরও গুনতে হচ্ছে আগের তুলনায় বাড়তি টাকা। শশীভূষণ বাজারে গত দুই মাস যাবৎ বেশির ভাগ নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যের দাম আকাশচুম্বী । তার মধ্যে কিছু পন্যের দাম বাড়ায় মানুষের কষ্টও বেড়েছে আগের তুলনায় দ্বিগুণ ।

শশীভূষণ কাঁচাবাজারে পন্যের দাম স্বাভাবিকের তুলনায় কিছুটা বাড়ার কারন অনুসন্ধান করতে গিয়ে পণ্যের দাম বাড়ার ম‚ল কারণ মাহে রমজানের আগে হঠাৎ করেই বাড়ে চাহিদা। শশীভূষণ অঞ্চলের ভোক্তা সাধারণ অসচেতন অবস্থায় মাহে রমজানের আগেই এসব পণ্য মজুদ করায় দাম স্বাভাবিকের তুলনায় বেড়ে গেছে দ্বিগুন।

এছাড়া প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেই প্রয়োজনীয় তদারকি, তাই এক শ্রেনীর অসাধু ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন অজুহাতে এসব পণ্যের দাম দ্বিগুন বাড়িয়ে দেয়।


এ বিষয়ে কথা হয় শশীভূষণ থানা সদর মাছ বাজারে খুচরা কাঁচা মাল ব্যবসায়ী মোঃ ফিরোজ, জুয়েল ও আমজাদের সাথে।তারা জানান,আড়ৎদার থেকেই আমরা (পহেলা রমজান) এসব পণ্য বেশী দামে ক্রয় করে আনতে হয়েছে। তাই দাম গতকালের তুলনায় আজ বেশী।

সর্বশেষ - লাইফস্টাইল