যশোর আজ বুধবার , ২৪ জানুয়ারি ২০২৪ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. গল্প
  7. জবস
  8. জাতীয়
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

গৌরীপুরে নবনির্বাচিত এমপিকে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা

প্রতিবেদক
Jashore Post
জানুয়ারি ২৪, ২০২৪ ৩:৪৭ অপরাহ্ণ
গৌরীপুরে নবনির্বাচিত এমপিকে মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

রায়হান উদ্দিন সরকার ( ময়মনসিংহ ) জেলা প্রতিনিধি :: ময়মনসিংহ জেলার গৌরীপুর উপজেলায় মঙ্গলবার ( ২৩ জানুয়ারী ) দুপুর ১২টায় স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স অডিটরিয়ামে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ১৪৮, ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) সংসদীয় আসনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এডভোকেট নিলুফার আনজুম পপি কে সংবর্ধনা প্রদান করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের সন্তানরা।

মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহিমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন,বীর মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন,বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ হেলাল উদ্দিন আহমেদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা ইকবাল হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল ইসলাম মুক্তি, বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ গফুর, বীর মুক্তিযোদ্ধা রতন সরকার সহ আরো অনেকেই। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মুজিবর রহমান ও বিল্লাল হোসেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সালমা আক্তার রুবি, গৌরীপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র- ২ দিলোয়ারা আক্তার, গৌরীপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু কাউসার চৌধুরীর রন্টি সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

অনুষ্ঠানের দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রহমান। আলোচনা শেষে সকল বীর মুক্তিযোদ্ধা এবং সন্তানরা নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যের হাতে শুভেচ্ছা স্মারক তুলে দেন।

বীরমুক্তিযোদ্ধা এবং সন্তানদের কাছে পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে সাংসদ পপি বলেন, আমি যেহেতু একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান তাই আমি মনে করি আমরা সকলেই একই পরিবারের সদস্য।

আমি প্রতিমাসে অন্তত একবার আমার এই পরিবারের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করার চেষ্টা করব। তিনি তার বক্তব্যে আরও বলেন আমার প্রথম এবং প্রধান কাজ হচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে একটি ক্যাপসুল লিফট স্থাপন করা যাতে বয়স্ক মুক্তিযোদ্ধারা অনায়াসে উঠানামা করতে পারে।

পরিশেষে সকলের সুস্বাস্থ্য এবং দীর্ঘায়ু কামনা করে সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে মিষ্টি মুখের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

সর্বশেষ - লাইফস্টাইল