যশোর আজ বুধবার , ১২ জানুয়ারি ২০২২ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. গল্প
  7. জবস
  8. জাতীয়
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

প্রধানমন্ত্রিত্ব হারাচ্ছেন কি বরিস

প্রতিবেদক
Jashore Post
জানুয়ারি ১২, ২০২২ ৭:২১ অপরাহ্ণ
প্রধানমন্ত্রিত্ব হারাচ্ছেন কি বরিস
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

বিরোধী দলের আইনপ্রণেতারা বরিসের পদত্যাগ চেয়েছেন। এমনকি তার নিজে দলের কিছু আইনপ্রণেতা বলেছেন,যদি তিনি করোনার বিধিনিষেধের নিয়ম ভেঙ্গেছেন বলে প্রমাণ পাওয়া যায় তাহলে তার পদত্যাগ করা উচিত। ব্রিটেনে গত বছর তখন দেশজুড়ে চলছিল জাতীয় লকডাউন।

সে সময় দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সরকারি বাসভবন ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে ‘ব্রিং ইউর ওন বুজ’ বা ‘আপনার নিজের মদ আনুন’ পার্টিতে তার কর্মকর্তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়। সেই পার্টিতে উপস্থিত ছিলেন স্বয়ং বরিস জনসন ও তার স্ত্রী। এ নিয়ে বরিস জনসনের ওপর দেশটিতে ক্রমাগত চাপ বাড়ছে।

আজ বুধবার দেশটির পার্লামেন্টে ওই পার্টির বিষয়ে নানা প্রশ্নের সম্মুখীন হবেন বরিস। কেননা তিনি ওই দিন পার্টিতে ছিলেন কি না তা আজ স্পষ্ট করতে হবে পার্লামেন্টে। এখন পর্যন্ত ওই পার্টির বিষয়ে স্পষ্ট কিছু বলেননি বরিস।

বরিস জনসনের দল কনজারভেটিভ পার্টির এক ঊর্ধতন আইনপ্রণেতা বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে বলেছেন, তার টিকে থাকা এই মুহুর্তে ভারসাম্যের মধ্যে আছে।এই আইনপ্রণেতা আরো বলেন, তাকে এই বিষয়ে পরিষ্কার করতে হবে। আমি মনে করি আপনি যদি ক্ষমা চান তাহলে এতে সমস্যার সমাধান হয়। বরিসের পক্ষে থাকে এমন সংবাদ মাধ্যমগুলোও ব্রিটিশ এই প্রধানমন্ত্রীকে সতর্ক করেছে যে তাকে এই সমস্যার সমাধান করতে হবে নতুবা তার অবস্থান অসমর্থনযোগ্য হবে।

ডেইলি মেইলের প্রথম পৃষ্ঠায় লেখা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর পার্টি কি শেষ হয়েছে?বরিসের প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টির ডেপুটি লিডার অ্যাঙ্গেলা রেনার বলেছেন, তিনি যদি ব্রিটিশ নাগরিকদের এবং পার্লামেন্টে মিথ্যা বলে থাকে এবং লকডাউনের সময় পার্টিতে অংশ নেন তাহলে তার অবস্থান অসমর্থনযোগ্য।

সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যদি কোনো মন্ত্রীপরিষদ সরকারি বিধিনিষেধ অমান্য করে তাহলে ধারণা করা হচ্ছে তারা তাদের পদ থেকে পদত্যাগ করবেন।

২০২০ সালে বরিস জনসন লকডাউন ভেঙ্গে যে পার্টি করেছেন সম্প্রতি ফাঁস হওয়া এক ইমেইলে এই তথ্য জানা গেছে। বৃটিশ আইটিভি এই মেইল প্রকাশ করে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই পার্টিতে অন্তত ১০০ জনকে আমন্ত্রণ জানানো হয়। তবে সে দিন প্রায় ৪০ জন অংশ নেন। যাদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন এবং তার স্ত্রী ক্যারি সিমন্ডসও উপস্থিত ছিলেন। ২০২০ সালের ২০ মে আয়োজন করা হয় ওই পার্টির। সে সময় দেশটিতে একাধিক ব্যক্তির সঙ্গে দেখা করা নিষিদ্ধ ছিল।

আইটিভির খবর, দেশটির প্রধানমন্ত্রীর প্রিন্সিপাল প্রাইভেট সেক্রেটারি মার্টিন রেনল্ডস ডাউনিং স্ট্রিটের ওই পার্টিতে অংশ নিতে ১০০ এর বেশি জনকে মেইল করেন। এসবের মধ্যে রয়েছেন বরিসের উপদেষ্টা, বক্তৃতা লেখক এবং দরজার স্টাফ।

মেইলে লেখা ছিল,এক অবিশ্বাস্য ব্যস্ত সময় পর আমরা ভাবছি এই সন্ধায় ১০ নম্বর গার্ডেনে ‘মনোরম আবহাওয়ার সুযোগ নিন’এবং সামাজিক দূরত্বের কিছু পানীয় পান করা ভাল হবে৷ অনুগ্রহ করে সন্ধ্যা ৬ টা থেকে যোগ দিন এবং আপনার মদ নিয়ে আসুন।

তথ্যসূত্র: বিবিসি, রয়টার্স, আইটিভি।

সর্বশেষ - লাইফস্টাইল