যশোর আজ বৃহস্পতিবার , ২৭ জুন ২০২৪ ২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. গল্প
  7. জবস
  8. জাতীয়
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

দেশের সব হাসপাতালে রাসেলস ভাইপারের অ্যান্টিভেনম আছেঃস্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী

প্রতিবেদক
Jashore Post
জুন ২৭, ২০২৪ ৮:১১ অপরাহ্ণ
দেশের সব হাসপাতালে রাসেলস ভাইপারের অ্যান্টিভেনম আছেঃস্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী ডাঃ সামন্ত লাল সেন বলেছেন— ‘ ভ্যাকসিন নেই রোগী মারা গেছে’, দয়া করে মানুষের কাছে এই ভুল তথ্য কেউ দেবেন না। ভুল তথ্য দিলে মানুষ আতঙ্কিত হয়। বাংলাদেশের প্রত্যেক হাসপাতালে রাসেলস ভাইপারের অ্যান্টিভেনম আছে।

বৃহস্পতিবার ( ২৭ জুন ) বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কনভেনশন হলে বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিন আয়োজিত ‘রাসেলস ভাইপার: ভয় বনাম ফ্যাক্ট’ শীর্ষক সেমিনারে এসব কথা বলেন তিনি।

সাংবাদিকদের উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সাংবাদিক ভাই বোনেরা, বাংলাদেশের মেডিসিনের আজকে যারা কর্ণধার, আপনারা তাদের মুখেই শুনলেন— রাসেলস ভাইপারে আক্রান্ত হলে কী করতে হবে আর কী করা যাবে না। আপনারা এই মেসেজগুলো জনগণের কাছে পৌঁছে দেন। আপনারাই কিন্তু পারেন—রাসেলস ভাইপারে আতংকিত না হওয়ার বার্তাটি জনগণের কাছে পৌঁছিয়ে দিতে।

সাপে কাটা রোগীকে দ্রুত ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাওয়া অপরিহার্য উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন,সংসদ সদস্যদের অনেক হ্যান্ডস আছে, মেম্বার আছে, চেয়ারম্যান আছে— রোগী হাসপাতালে আনার দায়িত্ব যদি আপনারা নেন এবং দ্রুত চিকিৎসকদের কাছে নিয়ে আসেন, তাহলে যথাযথ চিকিৎসা নিশ্চিত করা যাবে।

চিকিৎসকদের কাছে চিকিৎসা হচ্ছে। রোগী তো যথাসময়ে আনতে হবে। সেটা তো আর চিকিৎসকরা পারবেন না। কিন্তু রোগীকে দ্রুত নিয়ে আসা হলে আমরা রোগীকে বাঁচাতে পারি।

রাসেলস ভাইপার নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সবাই নিরলসভাবে কাজ করছেন উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সারা দেশে ডাক্তার থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যকর্মী, বিশেষজ্ঞরা এমনভাবে কাজ করছেন— আমি মনে করি, দেশের মানুষের মধ্য থেকে রাসেলস ভাইপারের আতঙ্ক একদিন চলে যাবে।

তাই আসুন, আমরা একসঙ্গে সচেতন হই। সচেতনতার কোনও বিকল্প নেই। সবাই একসঙ্গে সচেতন হলে, আমরা বর্তমানে যে ক্রাইসিস, সেটা থেকে উত্তীর্ণ হতে পারবো।

সেমিনারে বৈজ্ঞানিক সেশনে বক্তা হিসেবে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়য়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও বায়োটেকনোলজি বিভাগের প্রফেসর ডঃ মোঃ আবু রেজা, রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ আবু শাহীন মোঃ মাহবুবুর রহমান, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের মেডিসিন বিভাগের প্রফেসর ডাঃ অনিরুদ্ধ ঘোষ রাসেলস ভাইপার সাপ এবং অ্যান্টিভেনম নিয়ে তাদের বক্তব্য উপস্থাপন করেন।

বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিনের সভাপতি প্রফেসর ডা. মো. টিটু মিঞার সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডাঃ রোকেয়া সুলতানা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ডাঃ দ্বীন মোহাম্মদ নূরুল হক, বাংলাদেশ সোসাইটি অব মেডিসিনের মহাসচিব স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডাঃ আহমেদুল কবীর।

এছাড়া বিশেষজ্ঞ প্যানেলে দেশের স্বাস্থ্যসেবা খাতের বরেণ্য ব্যক্তিরা বক্তব্য রাখেন। সেমিনারে অনলাইনে সারা দেশের স্বাস্থ্যসেবা খাতের চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী ও বিশেষজ্ঞ ব্যক্তিরা সংযুক্ত ছিলেন।

সর্বশেষ - লাইফস্টাইল