যশোর আজ বুধবার , ২৭ অক্টোবর ২০২১ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. গল্প
  7. জবস
  8. জাতীয়
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডকে হারালো পাকিস্তান

প্রতিবেদক
Jashore Post
অক্টোবর ২৭, ২০২১ ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডকে হারালো পাকিস্তান
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়েছে পাকিস্তান। মঙ্গলবার ( ২৬ অক্টোবর ) শারজা স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে নেমেছে নিউজিল্যান্ড।

আগের ম্যাচে ভারতকে শুরুতেই গুঁড়িয়ে দিয়েছিলেন শাহীন আফ্রিদি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে উইকেট না পেলেও আঁটসাঁট বোলিংয়ে চেপে ধরেছিলেন ঠিকই। প্রথম ওভারেই মেডেন। হারিস রউফ হয়ে উঠলেন আরও ভয়ঙ্কর। একই সঙ্গে মোহাম্মদ হাফিজ-ইমাদ ওয়াসমিরা জ্বলে ওঠায় কিউইদের রানের চাকা বেশি দূর যায়নি। পাকিস্তানের দুর্দান্ত বোলিংয়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রান করতে পেরেছে নিউজিল্যান্ড।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ পেয়ে ফর্মে থাকা পাকিস্তান বোলারদের সামনে সুবিধা করতে পারেনি। উদ্বোধনী জুটিতে ৩৬ রা্ন এসেছে, তবে সংগ্রাম করেছেন দুই ওপেনার মার্টিন গাপটিল ও ড্যারেল মিচেল। গাপটিল ২০ বলে ৩ বাউন্ডারিতে ১৭ রান করে ফেরেন প্যাভিলিয়নে। মিচেল কিছুটা হাত খুলতে পেরেছিলেন। ইমাদ ওয়াসিমের বলে ফেরার আগে ২০ বলে ১ বাউন্ডারি ও ২ ছক্কায় খেলে যান ২৭ রানের ইনিংস।

ব্যাটিং অর্ডারের বদলে প্রমোশন পেয়ে চারে নামেন জিমি নিশাম। তবে কিউইদের ‘বাজি’ কাজে আসেনি।মাত্র ১ রান করে তার বিদায়। পরের সময়টা প্রতিরোধ গড়েছিলেন কেন উইলিয়ামসন ও ডেভন কনওয়ে। যদিও খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। উইলিয়ামসন দুঃখজনক রান আউটে ফেরেন ২৫ রানে।

২৬ বলের ইনিংসে ২ চারের সঙ্গে এক ছক্কার মার। কনওয়ে ২৪ বলে ৩ বাউন্ডারিতে করেন ২৭ রান। এরপর গ্লেন ফিলিপস (১৫ বলে ১৩), টিম সেইফার্ট ( ৮ বলে ৮) ও মিচেল স্যান্টনারের (৫ বলে ৬) ব্যর্থতায় ৮ উইকেটে ১৩৪ রানে থামে কিউইরা।

পাকিস্তানের সবচেয়ে সফল বোলার রউফ। এই পেসার ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে নেন ৪ উইকেট। শাহীন ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে পেয়েছেন ১ উইকেট। তার মতো একটি করে উইকেট শিকার ইমাদ ও হাফিজের।

শারজায় নিউ জিল্যান্ডের দেওয়া ১৩৫ রান তাড়া করতে নেমে পাকিস্তান ওই সময়ে হাফিজকে হারিয়ে হোঁচটই খেয়েছিল। এর আগে পরে আরও চার উইকেট হারায় তারা। এক পর্যায়ে পাকিস্তানের রান ৫ উইকেটে ৮৭।

জয়ের সমীকরণ সহজ ছিল না,৩১ বলে ৪৮ রান। কিন্তু অভিজ্ঞ শোয়েব মালিক ও আসিফ আলী কাজটা চোখের নিমিষেই করে ফেলেন। ৮ বল আগে ৫ উইকেট হাতে রেখে লক্ষ্য ছুঁয়ে ফেলে তারা। ১২ বলে ২৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন আসিফ। ২২৫ স্ট্রাইক রেটে সাজানো ইনিংসটিতে ছিল ১ চার ও ৩ ছক্কার মার। শোয়েব ২০ বলে করেছেন ২৭ রান। তার ইনিংসেও ছিল ২ চার ও ১ ছক্কা। মাত্র ২৩ বলে ৪৮ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে বিশ্বকাপে টানা দ্বিতীয় জয়ের স্বাদ পায় পাকিস্তান। ভারতকে হারানোর পর নিউ জিল্যান্ডকে বধ করে পাকিস্তান এখন উড়ছে।

বোলাররা নিউ জিল্যান্ডকে এগিয়ে রেখেছিলেন। বাবর আজম ও রিজওয়ানের ২৮ রানের উদ্বোধনী জুটি ভাঙার পর ফখর জামান (১১), হাফিজকে (১১) বড় কিছু করতে দেয়নি। এরপর রিজওয়ান (৩৩) ও ইমাদ ওয়াসিমও ( ১১) সাজঘরে ফেরেন। কিন্তু আসিফ ক্রিজে আসার পর সব ওলটপালট।

প্রথম বল কাট করে পয়েন্ট দিয়ে চার। ১৭তম ওভারে সাউদির দুই স্লোয়ারে দুই ছক্কা তার ব্যাটে। পরের ওভারে শোয়েব স্পিনার স্ট্যানারকে এক চার ও এক ছক্কা উড়ান। তাতে কাজটা সহজ হয়ে যায় পাকিস্তানের। ১৯তম ওভারে বোল্টকে লং অন দিয়ে ছক্কা উড়ালে পাকিস্তানের জয় নিশ্চিত হয়ে যায়।

টানা দুই জয়ে পাকিস্তান এখন বিশ্বকাপে হট ফেবারিট। সেমিফাইনাল প্রায় নিশ্চিত তাদের। ভারত ও নিউ জিল্যান্ডকে হারানোর পর তাদের সামনে আফগানিস্তান, নামিবিয়া ও স্কটল্যান্ড। গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে সেমিফাইনাল খেলতে না পারলে অবাকই হবেন সমর্থকরা।

সর্বশেষ - লাইফস্টাইল