যশোর আজ মঙ্গলবার , ২৬ অক্টোবর ২০২১ ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. গল্প
  7. জবস
  8. জাতীয়
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

কাগজের বলপেন তৈরির উদ্ভাবক যশোরের নাসিমা আক্তার

প্রতিবেদক
Jashore Post
অক্টোবর ২৬, ২০২১ ৫:৩৬ অপরাহ্ণ
কাগজের বলপেন তৈরির উদ্ভাবক যশোরের নাসিমা আক্তার
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

নিজিস্ব প্রতিবেদক :: কাগজদিয়ে পরিবেশবান্ধব বলপেন তৈরী করে রিতিমত তাক লাগিয়ে দিয়েছেন যশোরের নাসিমা আক্তার। ভালো কাজের পুরষ্কার স্বরুপ নজর কেড়েছেন যশোরের সুযোগ্য পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদারের। প্রশংসা কুড়িয়েছেন জেলা পুলিশের। কাগজের বলপেন তৈরির উদ্ভাবক নাসিমা আক্তার তার উদ্ভাবনীয় কলমের প্রচার-প্রচারণায় পেয়েছেন যশোর জেলা পুলিশের সহায়তা।

নাসিমা আক্তার যশোর জেলার কোতয়ালী মডেল থানাধীন লোন অফিস পাড়ায় বসবাস করেন। তিনি দুই ছেলে-মেয়ে ও প্রতিবন্ধী স্বামীকে নিয়ে বাঁচার জন্য প্রতিনিয়ত সংসার নামক জীবন যুদ্ধে সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার আশায় ও পরিবেশ দূষণের কথা চিন্তা করে ছোটবেলার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে কাগজ দ্বারা তৈরি করেছেন এক পরিবেশ বান্ধব বলপেন।

সাংসারিক কাজের ফাঁকে তিনি তৈরি করেন এই পরিবেশ বান্ধব বলপেন। নাসিমার অদম্য ইচ্ছা সে একদিন কারখানা খুলবে এবং তার মত অসহায় নারীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবে। কিন্তু তার এই ইচ্ছার পেছনে বড় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে অর্থ।

তার এই বলপেনটি তৈরি করতে ব্যবহার করেন বিভিন্ন ধরনের রঙিন কাগজ, আঠা ও রিফিল ( শিস )।এই কাজে প্রথমে তাকে সাহায্য করে তার ছেলে এবং এখন তার সাথে যুক্ত হয়েছেন আরো ৪/৫ জন অসহায় নারী। নাসিমার মনোবল আছে কিন্তু অর্থ নেই। সামান্য কিছু সহযোগিতার জন্য প্রতিদিনই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে যাচ্ছেন তিনি।

নাসিমা আক্তার শুনেছেন যশোরের বর্তমান পুলিশ সুপার জনাব প্রলয় কুমার জোয়ারদার, বিপিএম (বার), পিপিএম মহোদয় অত্যন্ত মানবিক একজন পুলিশ অফিসার। তিনি যশোর জেলায় যোগদানের শুরু থেকেই আইন শৃঙ্খলার ব্যাপক উন্নতি সহ বিভিন্ন প্রকার মানবিক কাজ করে ইতোমধ্যেই মানবিক পুলিশ সুপার হিসেবে  সুখ্যাতি অর্জন করেছেন।

তিনি পুলিশ সুপারের সাক্ষাৎ পাওয়ার আশা নিয়ে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে যান। ইতিমধ্যেই নাসিমা আক্তার যশোরের পুলিশ সুপারের সাথে দেখা করেছেন।

সাক্ষাৎকালীন সময়ে পুলিশ সুপার অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে নাসিমার পরিবেশ বান্ধব বলপেন তৈরীর বিষয়টি শোনেন এবং তার কাছ থেকে পাঁচ টাকা মূল্যের ১,০০০ টি বলপেন দশহাজার টাকা দিয়ে ক্রয় করেন। একই সাথে তিনি নাসিমার উদ্ভাবনীয় কাজের প্রশংসাসহ পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। পরিবেশ বান্ধব এই কলমটির গুরুত্ব অনুধাবন করে তিনি যথাযথ প্রচারের ব্যবস্থা করতে পুলিশ মিডিয়াসেলকে নির্দেশনা প্রদান করেন।

জনাব প্রলয় কুমার জোয়ারদার বলেন, অনেকেই অভাবে বিভিন্ন প্রকার অন্যায় কাজে জড়িয়ে পড়ে কিন্ত নাসিমা সেটা করে নাই। সে নিজের এবং পরিবেশের কথা চিন্তা করে পরিবেশ বান্ধব কলম তৈরি করেছে। এজন্য আমি জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে তাকে আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। আসুন আমরা নাসিমার মত উদ্ভাবকের পাশে দাঁড়াই। আমাদের একটু সহযোগিতায় নাসিমার মত অনেক উদ্ভাবক স্বাবলম্বী হতে পারবে।

যশোরের মানবিক পুলিশ সুপারের এ সহযোগীতা অনুকরণীয় ও দৃষ্টান্ত হয়ে থাকএ সমাজে। আসুন সকলের আন্তরিক প্রচেষ্ঠায় নাসিমার মত অনেক প্রতিভাবান অসহায়ের পাশে দাড়ায়। আমাদের সামান্যতম সহযোগীতায় জীবনে হয়ত তারা ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ পেয়ে এই সমাজেই প্রতিষ্ঠিত হবে। মানবিক পুলিশ সুপার ও উদ্ভাবক নাসিমার জন্য রইলো আমাদের শুভকামনা।

সর্বশেষ - লাইফস্টাইল