যশোর আজ রবিবার , ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অর্থনীতি
  3. আন্তর্জাতিক
  4. আমাদের যশোর
  5. খেলা
  6. গল্প
  7. জবস
  8. জাতীয়
  9. প্রবাস
  10. ফিচার
  11. বিনোদন
  12. রাজনীতি
  13. রান্না
  14. রূপচর্চা
  15. লাইফস্টাইল

আপন সহদর কর্তৃক প্রতারণা ও অর্থ আত্নসাত চেষ্টার অভিযোগ

প্রতিবেদক
Jashore Post
ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২২ ৬:২০ অপরাহ্ণ
আপন সহদর কর্তৃক প্রতারণা ও অর্থ আত্নসাত চেষ্টার অভিযোগ
সর্বশেষ খবর যশোর পোস্টের গুগল নিউজ চ্যানেলে।

স্টাফ রিপোর্টার :: যশোরের বন্দর নগরী বেনাপোলে আপন বড় ভাই ও বেনাপোল বাজারের বিতর্কিত ব্যবসায়ী শেখ হাসেম আলীর বিরুদ্ধে জমি বিক্রয়ের নামে প্রতারণা,হয়রানীসহ অর্থআত্নসাত চেষ্ঠার অভিযোগ তুলেছে ঝিকরগাছার দেওলী গ্রামের মৃত: মান্দারবক্সের ছোট পুত্র শেখ বিল্লাল হোসেন।

পৈত্রিক সম্পত্তির শরিকানার অংশ বিক্রয় করিবার কথা বলে বিগত ২ বছর পূর্বে ৩লাখ৩০হাজার টাকা নগদ গ্রহণ করে জমি রেজিস্ট্রি সম্পন্ন না করিয়া অন্যত্র জমি পূনঃবিক্রয় চেষ্ঠার মাধ্যমে অর্থ আত্নসাতের গুরুতর অভিযোগ মিলিছে।

ভূক্তভোগী বিল্লাল হোসেন জানান,অধ্যবধি নানা অজুহাতে আমার ভাই তার বিক্রয়কৃত অংশটি আমার নামে রেজিস্ট্রি করে দেইনী। সাম্প্রতি সময়ে বিল্লাল হোসেন তার ভাই হাসেম আলীকে জমি রেজিস্ট্রি করতে বললে হুমুকী ধামকীসহ অশোভন আচরনের স্বীকার হন বলে আরো জানান। বড় ভাইয়ের প্রতারণার সুষ্ঠু বিচার পেতে প্রশাসন সহ সমাজের সর্বস্তরের ক্ষমতাবান ব্যাক্তিদের সহযোগীতা কামনা করেছেন ভূক্তভোগী বিল্লাল।

প্রতারণা ঘটনার বিষদ জানিয়ে ভূক্তভোগী আরো জানান,যশোরের ঝিকরগাছা থানাধীন ১৪১ নং দেওলী মৌজায় পৈত্রিক সম্পত্তির শরিকানার ৭ শতক জমি আমার ভাই হাসেম আলী বিক্রয় করিবার নিমিত্তে বিগত ২০১৯ ইং তারিখে আমার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের উপস্থিতিতে আমার নিকট হতে নগদ ৩লাখ ৩০হাজার নগদ টাকা মৌখিক বায়না গ্রহন করিয়া দ্রুত রেজিস্ট্রি করিয়া দিতে চুক্তিবদ্ধ হন।

পরবর্তী সময়ে রেজিস্ট্রি সংক্রান্ত কাগজপত্র সংগ্রহ করিবার কথা বলিয়া কালক্ষেপন করিতে থাকে। এরি মধ্যে সে আমার কাছে বিক্রয়কৃত অংশ অন্যত্র পূন বিক্রয়ের চেষ্টা চালিয়ে টাকা গ্রহণ করার কথা জানিতে পারি। এ সংক্রান্ত বিষয়ে নিয়ে ইতিপূর্বেও আমি ঝিকরগাছা থানায় লিখিত অভিযোগ করেছি যা তদন্ত শেষে বিচারাধীন অবস্থায় রয়েছে।

সাম্প্রতি সময়ে আমি পুনরায় আমার ভাই হাসেম আলীর এহেন কমৃকান্ডের প্রতিবাদ জানালে সে লোকমারফত ও নিজে আমাকে নানা প্রকার হুমকী,ধামকী ও ভয় ভিতী দেখাচ্ছে। অর্থআত্নসাত চেষ্ঠায় নানা ভাবে আমাকে হয়রানী দিচ্ছে। এ বিষয়ে অভিযুক্ত হাসেম আলীর সাথে কথা বললে তিনি বিল্লালের কাছ হতে জমি বিক্রয় বাবদ টাকা গ্রহনের সত্যতা স্বীকার করে জানান,আমার ভাই বিল্লালের সহিত আমার আরো লেনদেন আছে তাই ক্রয়কৃত জমি রেজিস্ট্রি করে দেইনি।

জমি ক্রয়ের জন্য মৌখিক বায়না স্বরুপ টাকা প্রদানের সময় উপস্থিত স্বাক্ষী অপর ভাই গোলাম মোস্তফা ও কাশেম আলী বিল্লালের কাছ হতে জমি বিক্রয় বাবদ হাসেম আলী নগদ ৩ লাখ ৩০হাজার টাকা গহনের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান বিষয়টি পারিবারিক ভাবে মিমাংসার চেষ্ঠা করেও আমরা ব্যার্থ হয়েছি।

ঝিকরগাছা উপজেলার হাজিরবাগ ইউপির প্রাক্তন সদস্য মিন্টু ফোনে শেখ হাসেম আলীর এক জমি দুই জনের কাছে বিক্রয় করার উদ্দেশ্যে টাকা গ্রহনের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,ঝিকরগাছা থানায় বিল্লালের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তদন্ত কর্মকর্তা এস আই নজরুলের উপস্থিতিতে একবার উভয় পক্ষ নিয়ে থানায় বসেও সিন্ধান্ত হয়নি।

সংবাদ লেখাকালীন সময়ে বিল্লাল হোসেন আপন সহদর কর্তৃক প্রতারণার স্বীকার ও অর্থ আত্নসাৎ চেষ্ঠার বিচার চেয়ে বাঁকড়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

সর্বশেষ - লাইফস্টাইল